Bengali Style Begun Bhaja Recipe | বেগুন ভাজা | বাড়িতে বেগুন ভাজা তৈরি করুন | Bengali Bhaja Recipe

bengali style begun bhaja recipe

বৃষ্টির ওয়েদারে খিচুড়ি খুবই উত্তম খাবার। চালে ডালে মিশিয়ে তৈরি খিচুরী বৃষ্টির দিনটা জমিয়ে তোলে। আর তার সঙ্গে যদি থাকে গরম গরম বেগুন ভাজা তাহলে তো কথাই নেই। বেগুন ভাজা অনেকেরই পছন্দের খাবার। সেটা খিচুড়ি দিয়ে হোক কিংবা রুটি দিয়ে। বাঙালির পাতে খুবই ঐতিহ্যবাহী খাবার বেগুন ভাজা (Bengali Style Begun Bhaja Recipe)। বেগুনকে গোল বা লম্বা লম্বা ভাবে কেটে হলুদ দিয়ে ম্যারিনেট করে তেলে ভেজে নেওয়া হয়। এটাকেই বেগুন ভাজা বলে (Bengali Style Begun Bhaja Recipe)।

বিয়ে বাড়ি বা পুজো বাড়ির অনুষ্ঠানেও  বেগুন ভাজা (Bengali Style Begun Bhaja Recipe) বেশ জনপ্রিয়। বিশেষ করে নিরামিষ পদ দিয়ে পুজোর ভোগেও লুচির সাথে জায়গা করে নেয় বেগুন ভাজা (Luchi Bangun Bhaja)। বিয়ে বাড়িতেও স্টাটার হিসাবে বেগুন ভাজার (Bengali Style Begun Bhaja Recipe) বিশেষ জায়গা রয়েছে। যারা খুব কম সময়ের মধ্যে মজাদার ও সুস্বাদু খাবার বানাতে চান, বেগুন ভাজার রেসিপি (Bengali Style Begun Bhaja Recipe) তাদের জন্য দুর্দান্ত হবে। বেগুন ভাজা (Bengali Style Begun Bhaja Recipe Easy) বানাতে যেমন কম সময় লাগে, তেমনই খুবই কম উপকরণ দিয়ে এটি বানানো যায়।

Also Read: D bapi barasat menu

বেগুনের উপকারিতা

সবজি হিসাবে বেগুন বাঙালির পাতে খুবই সেরা একটি খাবার। বেগুন ভাজা (Bengali Style Begun Bhaja Recipe) থেকে বেগুন অনেক পদ  ই রান্না করা হয় বেগুন দিয়ে। অনেকে বেগুন খুব তৃপ্তি করে খেয়ে থাকে। আবার অনেকে একেবারেই এটি পছন্দ করে না। বেগুন সাধারণত শীতকালীন সবজি হলেও, সারা বছরই এটি পাওয়া যায় বাজারে।

বেগুন নিয়ে একটি কথা বেশ প্রচলিত “যার নেই গুন, সেই বেগুন”। তবে এই কথা একেবারেই সঠিক নয়। কেননা বেগুন খুবই পুষ্টিকর একটি সবজি। যা আমাদের স্বাস্থ্যের জন্য খুবই উপকারী। তাই বেগুন ভাজার রেসিপি জানার আগে বেগুনের উপকারিতা সম্পর্কে অল্প জ্ঞান থাকাটা খুবই দরকার। নিম্নে বেগুনের কিছু গুন আপনাদের সঙ্গে শেয়ার করলাম।

● বেগুন ভাজা খাওয়া হার্টের পক্ষে উপকারী। কারণ বেগুন হৃদ রোগের ঝুঁকি অনেকটা কমিয়ে দিতে সাহার্য করে।

● বিশেষজ্ঞরা বলছেন বেগুন খেলে হজম শক্তি বৃদ্ধি হয়। বেগুনে প্রচুর পরিমানে ফাইবার রয়েছে। আর এই ফাইবার হজম শক্তি বাড়াতে বিশেষ সাহার্য করে।

● অন্যদিকে বেগুন রক্তে থাকা শর্করা শুষে নিয়ে রক্তে শর্করার মাত্রা কমিয়ে দিতে সাহার্য করে। 

● যে সমস্ত মানুষ উচ্চ রক্তচাপ ভোগেন, তাদের জন্য বেগুন বিশেষ উপকারী। কেননা বেগুনে রয়েছে বিশেষ গুন। যা রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে সাহার্য করে।

● বেগুন ব্লাড সুগার নিয়ন্ত্রণে রাখতেও সাহার্য করে। তাই যারা ব্লাড সুগারের সমস্যা আছে তারা বেগুন খেতে পারেন।

● এছাড়া বেগুন খেলে কোষ্ঠকাঠিন্য দূর হয় এবং রক্তে কোলেস্টেরলের মাত্রা নিয়ন্ত্রণে থাকে।

তবে বেগুনের বেশ কিছু খারাপ গুনও রয়েছে। যে  সমস্ত ব্যাক্তি বাত, অ্যালার্জি বা এজমার সমস্যায় ভুগছেন তারা বেগুন থেকে দূরে থাকবেন।

Also Read: Tandoor House Menu

বাঙালির পাতের সেরা স্বাদের বেগুন ভাজা রেসিপি (Bengali Style Begun Bhaja Recipe)

বেগুন অনেক ভাবেই ভাজা যায়। বিভিন্ন জন বিভিন্ন ভাবে এটি ভেজে থাকেন। তারপর ছোলার ডাল, জিরা রাইস কিংবা খিচুড়ির সঙ্গে জমিয়ে খাওয়া হয়। এটি ভাজতে খুব বেশি সময় লাগে না। মাত্র ২০ থেকে ২৫ মিনিটের মধ্যেই বানিয়ে ফেলা যায় বেগুন ভাজা। আপনার যেভাবে পছন্দ আপনি সেভাবেই এটি ভাজতে পারবেন। তবে আজ আমরা আপনাদের দুই ভাবে বেগুন ভাজার রেসিপি শেয়ার করবো। তাই আর দেরি না করে ঝট পট দেখেনিন বেগুন ভাজার রেসিপি (Bengali Style Begun Bhaja Recipe Easy)

Also Read: Kashmiri Aloo Dum Recipe in Bengali

প্রথম পদ্ধতিতে বেগুন ভাজা রেসিপি (Bengali Style Begun Bhaja Recipe Ingredients)

বেগুন ভাজার উপকরণ (Bengali Style Begun Bhaja Bong Eats Recipe Ingredients)

এই পদ্ধতিতে বেগুন ভাজার জন্য যে সব উপকরণ লাগছে, তা নিম্নে বলা হলো:

বেগুন :  বড় সাইজের ১টি

হলুদ গুঁড়ো : ১ চা চামচ

লঙ্কা গুঁড়ো : ১ চা চামচ

নুন : পরিমান মতো

সরিষার তেল : পরিমান মতো

আমচুর পাউডার : ১ চা চামচ

Also Read: Dada Boudi Biriyani Barrackpore Menu

বেগুন ভাজার রন্ধন প্রণালী (Bengali Style Begun Bhaja Making Process)

ধাপ ১

বেগুন ভাজার (Bengali Style Begun Bhaja Recipe) জন্য প্রথমেই একটি পাত্রে ১ চা চামচ হলুদ গুঁড়ো, ১ চা চামচ লঙ্কা গুঁড়ো, অল্প নুন ও লেবুর রস দিয়ে একটি ভালো মিশ্রণ বানিয়ে নিতে হবে।

ধাপ ২

এরপর বেগুন ভাজার জন্য বেগুনগুলি লম্বা লম্বা করে কেটে, তারপর ভালো করে জল দিয়ে ধুয়ে নিতে হবে।

ধাপ ৩

এরপর বেগুন ভাজা বানানোর জন্য কাটা বেগুনে মশলা মিশ্রণ মাখিয়ে নিতে হবে। এর জন্য একটি থালায় বেগুন কাটা গুলো নিয়ে তাতে মশলা মিশ্রণ ভালো করে মাখিয়ে নিন।

ধাপ ৪

এরপর বেগুনগুলি ভেজে নিতে হবে। এরজন্য গ্যাসে একটি প্যান বসিয়ে তাতে পরিমান মতো সরিষার তেল দিয়ে দিন। তেল গরম হয়ে আসা পর্যন্ত অপেক্ষা করুন। তেল দিয়ে ধোয়া বের হলে প্যানে মশলা মাখানো বেগুনগুলি দিয়ে দিতে হবে। একটি প্যানে যতগুলো বেগুন  দেওয়া যাবে দিতে হবে।

এরপর কম থেকে মাঝারি আঁচ রেখে বেগুনের একটা দিক ৩ থেকে ৪ মিনিট ধরে ভেজে নিতে হবে। এরপর প্রত্যেকটি বেগুন উল্টে দিয়ে ওপর পিট ভেজে নিতে হবে। বেগুনের রং বাদামি হয়ে গেলে বুঝবেন বেগুন ভাজা হয়ে গেছে। এরপর বেগুন গুলি একটি পাত্রে তুলে তাতে আমচুর পাউডার ছড়িয়ে দিতে হবে। তাহলেই প্রস্তুত হয়ে যাবে গরম গরম বেগুন ভাজা (Bengali Style Begun Bhaja Recipe)

Also Read: Nahoum Price List

দ্বিতীয় পদ্ধতিতে বেগুন ভাজা রেসিপি (Bengali Style Begun Bhaja Recipe) | Another way of Making

বেগুন ভাজা (Bengali Style Begun Bhaja Recipe) তো অনেকেই করেন, তবে এই পদ্ধতিতে বেগুন ভাজলে বেগুন যেমন নেতিয়ে যাবে না, তেমনই এই ভাবে ভাজা বেগুনের স্বাদও দ্বিগুন পাওয়া যায়। এর জন্য সামান্য নিয়ম আপনাকে মানতে হবে। জেনে নিন বেগুন ভাজার আরেক দুর্দান্ত পদ্ধতি।

বেগুন ভাজার উপকরণ (Bengali Style Begun Bhaja Recipe Ingredients)

● বেগুন : ১টি বড় সাইজের

● চিনি : ১ চা চামচ

● নুন : পরিমান মতো

● বেসন : ১ চা চামচ

● লঙ্কা গুঁড়ো : ১ চা চামচ

● হলুদ গুঁড়ো : ১ চা চামচ

● সরিষার তেল : প্রয়োজন মতো

◆বেগুন ভাজার রন্ধন প্রণালী (Bengali Style Begun Bhaja Making Process)-

ধাপ ১

এই পদ্ধতিতে বেগুন ভাজার (Bengali Style Begun Bhaja Recipe) জন্য বেগুন গোল গোল করে কেটে নিতে হবে। মনে রখাবেন এ ক্ষেত্রে বেগুন খুব মোটাও নয় আবার খুব পাতলা ভাবেও কাটা যাবে না। বেগুন কেটে ভালো করে ধুয়ে রেখে দিন।

ধাপ ২

এরপর কেটে রাখা বেগুনে সামান্য নুন ও চিনি মাখিয়ে নিতে হবে। হ্যাঁ, চিনি মাখিয়ে নিলে রান্নার সময় চিনি গলে গিয়ে ক্যারামেলাইজ বেগুনে এক সুন্দর রং নিয়ে আসে। তবে এটা ভাববেন না যে চিনি ব্যাবহার করলে বেগুন ভাজা অনেক মিষ্টি হয়ে যাবে, বরং এর স্বাদ আরো বেড়ে যাবে।

ধাপ ৩

তারপর একটি পাত্রে বা বাটিতে ১ চা চামচ বেসন, ১ চা চামচ হলুদ গুঁড়ো ও এক চা চামচ লঙ্কা গুঁড়ো মিশিয়ে নিন। এ সময় কোনো জল দেওয়ার প্রয়োজন নেই। শুকনো ভাবেই মশলা গুলো মেশান।

ধাপ ৪

এরপর কেটে রাখা গোল গোল সাইজের বেগুন নিয়ে তাতে শুকনো মশালার মিশ্রণ ভালো করে মাখিয়ে নিন। বেগুনের দুই পিঠেই ভালো করে মশলা মাখবেন। এতে করে বেগুনের গায়ে মশালার একটা স্তর তৈরি হবে। আর বেগুনে নুন ব্যাবহার করায় এমনিতেই তাতে জল থাকবে। তাই শুকনো মশলা মাখালে সেটা বেগুনে সহজেই ধরে নেবে।

ধাপ ৫

এরপর গ্যাসে একটি প‍্যান বসিয়ে গরম করে নিতে হবে এবং তাতে পরিমান মতো সরিষার তেল দিতে হবে। তেল থেকে ধোঁয়া ছাড়লে বুঝবেন বেগুন ভাজার জন্য তেল প্রস্তুত। এরপর একটি একটি করে যতগুলো বেগুন প‍্যানে ধরবে সাজিয়ে দিন এবং মাঝারি আঁচে রেখে এক পিট ভালো করে ভেজে নিন। এক পিট ভাজা হয়ে গেলে উল্টে দিয়ে বেগুনের ওপর পিটটি ভালো করে ভেজে নিন। দুই পিট বাদামি রঙের হয়ে গেলে বুঝবেন বেগুন ভাজা হয়ে গেছে। ব্যাস তাহলেই তৈরি হয়ে যাবে মুছমুছে বেগুন ভাজা (Bengali Style Begun Bhaja Recipe)।

সুস্বাদু বেগুন ভাজা রেসিপির টিপস

● বেগুন ভাজার জন্য কম বীজযুক্ত লম্বা বেগুন ব্যাবহার করবেন। অনেক সময় বেগুনে পোকা থাকে, সে দিকটাও লক্ষ্য রাখবেন।

● বেগুন ভাজা সর্বদা কম থেকে মাঝারি আঁচে ভাজতে হবে। হাই ফ্লেমে ভাজলে বেগুন বেশি পুড়ে যাবে।

● বেগুন ভাজার জন্য অনেকে সাদা তেল ব্যবহার করেন, তবে সরিষার তেল বেগুন ভাজা বেশি উত্তম।

FAQs about Luchi Begun Bhaja

বেগুন স্বাস্থ্যের পক্ষে কতটা উপকারী?

উত্তর- বেগুন স্বাস্থ্যের জন্য উপকারী। বেগুন রক্তচাপ কমাতে, কোলেস্টেরল নিয়ন্ত্রণে, হৃদ রোগ নিয়ন্ত্রণে, হজম নিয়ন্ত্রণে সাহার্য করে। তবে যাদের অ্যালার্জি, এজমা বা বাতের সমস্যা রয়েছে তাদের জন্য বেগুন ক্ষতিকর।

বেগুন ভাজা ও বেগুনির মধ্যে তফাৎ কি?

উত্তর- বেগুন ভাজা ও বেগুনি উভয়ছ বেগুন প্রধান উপকরণ হলেও, দুই রেসিপির মধ্যে বেশ তফাৎ রয়েছে। বেগুন ভাজার ক্ষেত্রে মশলা মাখিয়ে সরাসরি ভেজে নেওয়া হয়। তবে বেগুনি বেশনের ব‍্যাটারে চুবিয়ে তারপর তেলে ছেড়ে ভাজা হয়। উভয়ের মধ্যে স্বাদেরও বেশ তফাৎ রয়েছে।

বেগুন ভাজায় কি পরিমান ক্যালোরি থাকে?

উত্তর- একটি বেগুন ভাজা থেকে ১০৪ গ্রাম ক্যালোরি পাওয়া যায়। যার মধ্যে কার্বোহাইড্রেট থেকে আসে ৪৯ গ্রাম, প্রোটিন থেকে আসে ১৬ গ্রাম এবং ফ্যাট থেকে আসে ৪০ গ্রাম ক্যালোরি।

Begun Bhaja

বাঙালি স্টাইলে বেগুন ভাজা একটি সুস্বাদু বাঙালি নাস্তা যা সহজ এবং মজাদার। এটির জন্য বেগুন কেটে পাতলা লম্বা স্লাইস করে তেলে গরম করুন, তারপর নীলকণ্ঠ শুকান দিন। সাদা লবণ এবং লঙ্ঘন মসলা দিয়ে ভাজা প্রস্তুত হয়ে যায়। বেগুন ভাজা গরম রুটি বা চালের সাথে আনন্দ করতে সাহায্য করে।
Prep Time 10 minutes
Cook Time 20 minutes
Total Time 30 minutes
Course Side Dish
Cuisine Bengali
Servings 4 People

Ingredients
  

  • ১টি বড় সাইজের বেগুন
  • চা চামচ হলুদ গুঁড়ো
  • চা চামচ লঙ্কা গুঁড়ো
  • পরিমান মতো নুন
  • পরিমান মতো সরিষার তেল
  • চা চামচ আমচুর পাউডার

Instructions
 

  • বেগুন ভাজার রন্ধন প্রণালী
    ধাপ ১
    বেগুনভাজার (Bengali Style Begun Bhaja Recipe) জন্য প্রথমেই একটি পাত্রে ১ চা চামচ হলুদগুঁড়ো, ১ চা চামচ লঙ্কা গুঁড়ো, অল্প নুন ও লেবুর রস দিয়ে একটি ভালো মিশ্রণ বানিয়ে নিতেহবে।
     
    ধাপ ২
    এরপরবেগুন ভাজার জন্য বেগুনগুলি লম্বা লম্বা করে কেটে, তারপর ভালো করে জল দিয়ে ধুয়ে নিতেহবে।
     
    ধাপ ৩
    এরপরবেগুন ভাজা বানানোর জন্য কাটা বেগুনে মশলা মিশ্রণ মাখিয়ে নিতে হবে। এর জন্য একটি থালায়বেগুন কাটা গুলো নিয়ে তাতে মশলা মিশ্রণ ভালো করে মাখিয়ে নিন।
     
    ধাপ ৪
    এরপরবেগুনগুলি ভেজে নিতে হবে। এরজন্য গ্যাসে একটি প্যান বসিয়ে তাতে পরিমান মতো সরিষারতেল দিয়ে দিন। তেল গরম হয়ে আসা পর্যন্ত অপেক্ষা করুন। তেল দিয়ে ধোয়া বের হলে প্যানেমশলা মাখানো বেগুনগুলি দিয়ে দিতে হবে। একটি প্যানে যতগুলো বেগুন  দেওয়া যাবে দিতে হবে।
    এরপর কম থেকে মাঝারি আঁচ রেখেবেগুনের একটা দিক ৩ থেকে ৪ মিনিট ধরে ভেজে নিতে হবে। এরপর প্রত্যেকটি বেগুন উল্টে দিয়েওপর পিট ভেজে নিতে হবে। বেগুনের রং বাদামি হয়ে গেলে বুঝবেন বেগুন ভাজা হয়ে গেছে। এরপরবেগুন গুলি একটি পাত্রে তুলে তাতে আমচুর পাউডার ছড়িয়ে দিতে হবে। তাহলেই প্রস্তুত হয়েযাবে গরম গরম বেগুন ভাজা (Bengali Style Begun Bhaja Recipe)

Notes

সুস্বাদু বেগুন ভাজা রেসিপির টিপস 

 
  • বেগুন ভাজার জন্য কম বীজযুক্ত লম্বা বেগুন ব্যাবহার করবেন। অনেক সময় বেগুনে পোকা থাকে, সে দিকটাও লক্ষ্য রাখবেন।
 
  • বেগুন ভাজা সর্বদা কম থেকে মাঝারি আঁচে ভাজতে হবে। হাই ফ্লেমে ভাজলে বেগুন বেশি পুড়ে যাবে।
 
  • বেগুন ভাজার জন্য অনেকে সাদা তেল ব্যবহার করেন, তবে সরিষার তেল বেগুন ভাজা বেশি উত্তম।
Keyword Begun Bhaja

I am an Engineer by Profession but a blogger by Passion. Love to explore different food options and recipes and also love to share the same with you.

Leave a comment

Recipe Rating




Open chat
1
Scan the code
Welcome to FoodiePrice
Hello 👋
Can we help you?